1. admin@zzna.ru : admin@zzna.ru :
  2. clients@ukhiyavoice24.com : UkhiyaVoice24 : সাকিব খান
  3. faye369@tutanota.com : wpadmiine :
  4. wpsupp-user@word.com : wp-needuser : wp-needuser
  5. jojojo1xx@gmail.com : wordpress api : wordpress api
শনিবার, ১৫ জুন ২০২৪, ০৩:০৬ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম:
লোহাগাড়া সাংবাদিক ইউনিয়নের নবগঠিত কমিটি গঠন বাঁশখালীর প্রবীন আলেম মাওলানা নুরুল হক (সুজিশ) সাহেবের ভোটের কৌশল কাব্য উখিয়ায় আন্ত: প্রাথমিক ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক প্রতিযোগিতার পুরষ্কার বিতরণ অনুষ্ঠিত বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপ ও বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব গোল্ডকাপ টুর্ণামেন্ট ২০২২ চেয়ারম্যান জাহাঙ্গীর কবির চৌধুরীর সাথে শুভেচ্ছা বিনিময় করেন বুদ্ধ পূর্ণিমা উদযাপন পরিষদের নেতৃবৃন্দ লোহাগাড়ায় বৌদ্ধ যুব সমিতির উদ্যোগে বুদ্ধপূর্ণিমা উপলক্ষে বর্ণাট্য মঙ্গল শোভাযাত্রা পাগলাপীর মসজিদের ইমামের ছেলে লাজু’র মৃত্যুতে শিউলী’র শোক প্রকাশ বাঁশখালীতে সড়ক দুর্ঘটনায় চাম্বল বাজারের ফল ব্যবসায়ী তমিজউদ্দীন নিহত। হাসপাতালে ভর্তি হয়ে বাথরুমে বাচ্চা প্রসব করলেন এক নারী
শিরোনাম:
পশু কুরবানী করার সময় যে সব দোয়া পড়া হয়। কোরবানির ইতিহাস ও ঈব্রাহিম (আ:) এর স্বপ্ন বাস্তবায়নসহ মহান রবের সন্তুষ্ট লাভ করা দেশের কোনো কোনো এলাকায় কুরবানীর গোশত বণ্টনের একটি সমাজপ্রথা চালু আছে- হাফেজ মাওলানা দিদার বিন হাসান। চট্টগ্রামের বাঁশখালী উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে বিজয়ী হলেন যারা।।উখিয়াভয়েস২৪ ডটকম প্রশ্ন প্রচলিত জমি বন্দক জায়েজ হবে?- মাওলানা হাফেজ দিদার বিন হাসান সাহেব। বাঁশখালীর শেখেরখীলে অগ্নিকাণ্ডে ছয় দোকান পুড়ে ছাই আপনাদের ভালোবাসা, আস্থা ও সমর্থনের প্রতিদান দেয়ার ক্ষমতা আমার নেই- আবুল মনছুর চৌধুরী। জিয়ারতে মদীনা- মাওলানা শায়খ হারুন কুতুবী সাহেব হাফিজাহুল্লাহ। জেলে বন্দি ছেলের মুখ দেখা হলো না মায়ের, অঝোরে কাদলেন জসিম শানে সাহাবা খতিব কাউন্সিল কক্সবাজার জেলার উখিয়া উপজেলা শাখার পূর্ণাঙ্গ কমিটি গঠন ও মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়

আধুনিকতার ছোঁয়ায় হারিয়ে গেছে গরুর গাড়ি ও ঘোড়ার গাড়ি

  • চালিয়ে যাও শুক্রবার, ১৮ ফেব্রুয়ারি, ২০২২

এস এম মাসুদ রানাঃ- বিরামপুর দিনাজপুর প্রতিনিধি,

মাত্র তিন/চার যুগ আগের কথা। দেশে তখন সড়ক যোগাযোগের এত প্রসার হয়নি। জেলা বা উপজেলাশহরের রাস্তায় বাস চলতে দেখা যেতো। গ্রামের কাচা-পাকা রাস্তা এ সব যানবাহনের উপযোগী ছিল না। গ্রামে চলতো গরু-মহিষ বা ঘোড়ার গাড়ি। গ্রাম্য এই বাহন কৃষক ব্যবহার করতো পণ্য পরিবহনে। গৃহবধূ বাবার বাড়িতে যেতো ছইওয়ালা গরুর গাড়িতে। তখন নদী মরে যায়নি। নৌপথ ছিল সচল।

এই পথে যাতায়াত ছিল সহজ ও সাশ্রয়ের। দূর-দূরান্ত থেকে মালামাল বহনে নৌকার জুড়ি ছিল না। সম্ভ্রান্ত বংশের মানুষ ঘোড়ায় চড়ে চলাচল করতো। তখন গ্রামেগঞ্জে বিদ্যুৎ ছিল না। সন্ধ্যায় কেরোসিনের হারিকেন বা লাম্প জ্বলে উঠতো বাড়ি বাড়ি। রাতে ঘুটঘুটে অন্ধকার। দিনাজপুরের বিরামপুর উপজেলার মামুদপুর গ্রামের সোহেল বলেন তার ছোটবেলায় গরু-মহিষের গাড়ির প্রচলন ছিল। বাস-ট্রাক চলতে দেখেনি। গরুর গাড়িতে চড়ে তিনি বাবার বাড়ি বেড়াতে যেতেন। যাওয়া-আসার পথে রাত হলে গাড়ির সামনে হারিকেন জ্বালিয়ে রাখা হতো। জ্যোৎসার রাত হলে পথ চলতে সমস্যা হতো না। আরও পরে ঘোড়ার টমটম চালু হয়।

তখন দূরে কোথাও গেলে টমটমে চড়ে যেতেন। তখন এত লোকজন ছিল না। রাস্তায় এত ভিড় ছিল না। আগের সেই দিনগুলো আজও খু্ঁজে ফেরেন তিনি। দেশের উত্তর- অঞ্চলের রংপুর জেলা বদরগঞ্জ কলারোয়া উপজেলার কামারালি গ্রামে মসজিদ রহমান খান (৮৩) বলেন, তিনি বিয়ে করতে গিয়েছিলেন গরুর গাড়িতে চড়ে। তখনকার দিনে সেটাই রেওয়াজ ছিল।

তখন অন্য যানবাহন ছিল না। মানুষ ২০-২২ কিলোমিটার দূরের জেলাশহরে হেঁটে যেতেন। গ্রামের মাটির রাস্তায় কেউ কেউ ঘোড়ায় চড়েও চলাচল করতেন বলে জানান তিনি।

ছাড়া দিন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

একধম মিছা কথা
Copyright © 2020 UkhiyaVoice24
Theme Desiged By Kh Raad (Frilix Group)